পথ শিশুদের পাশে একদল তরুণ

কিশোর বাংলা প্রতিবেদন: হোক পথ শিশু, ওরাও তো মানুষ। শিক্ষার অধিকার রয়েছে ওদের। কিন্তু শিক্ষার আলো থেকে বঞ্চিত তারা। এসব পথ শিশুদের অধিকাংশই মাদকসেবী। তাদের স্কুলে পাঠানোর আগ্রহ নেই পরিবারের।
স্কুল থেকে ঝরে পড়া, মাদকাসক্ত এসব পথ শিশুদের স্কুলমূখী করতে উৎসাহিত করছে একদল তরুণ স্বেচ্ছাসেবী। ‘জাগো’ ফাউন্ডেশনের স্বেচ্ছাসেবী কর্মী তারা। এরা কেউ স্কুলের শিক্ষার্থী, আবার কেউ কলেজ পড়ুয়া।
বগুড়ায় ৪০ জন পথ শিশুকে একটি শিশু পার্কে একত্রিত করে স্বেচ্ছাসেবী তরুণরা। দিনব্যাপী চলে নানা আয়োজন। বসে গল্প বলা, কবিতা আবৃতি, নাচ ও গানের আসর। এতে অংশ নেয় এসব পথ শিশুরাই। তাদের জন্য ববস্থা করা হয়েছিল উন্নতমানের খাবারের।
দূরন্ত এসব পথ শিশুরা সারদিন ছুটে বেড়ায় পার্কের এক প্রান্ত থেকে আরেক প্রান্তে। ইচ্ছেমত বিনোদন উপভোগ করে তারা। আনন্দে আত্মহারা হয়ে উঠে তারা।
তরুন এসব স্বেচ্ছাসেবী কর্মীরাও আনন্দিত। স্বেচ্ছাসেবী মিজানুর রহমান জানান, স্কুল থেকে ঝরে পড়া এসব শিশুদের আবারো স্কুলমুখি করাই আমাদের মূল লক্ষ্য। স্কুলে গেলেই তারা এসব বিনোদনের কিছুটা হলেও উপভোগ করতে পারবে। তাদের মধ্যে শুধু ধারণা দেওয়া, শিক্ষাই তাদের স্বপ্ন পূরণ করতে পারে। এমন আত্মবিশ্বাস সৃষ্টি করতে পারলেই স্কুলমুখি হবে তারা।