এই সময়ে
হোম / কিশোর সংবাদ / সরকারি উদ্যোগে সব উপজেলায় গঠন হচ্ছে কিশোর-কিশোরী ক্লাব
কিশোর-কিশোরী

সরকারি উদ্যোগে সব উপজেলায় গঠন হচ্ছে কিশোর-কিশোরী ক্লাব

কিশোর বাংলা প্রতিবেদনঃ শিশু বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির চেয়ারপার্সন মেহের আফরোজ চুমকি এমপি বলেছেন, সরকারি উদ্যোগে প্রতিটি উপজেলায় কিশোর-কিশোরী ক্লাব গঠন করা হচ্ছে। ১৩ অক্টোবর রাজধানীর বাংলা একাডেমিতে জাতীয়ভাবে অনুষ্ঠিত কিশোর-কিশোরী ও যুব সম্মেলনে তিনি এ তথ্য জানান।

এর আগে এ সম্মেলনে ইউনাইট ফর বডি রাইটস (ইউবিআর) বাংলাদেশ এ্যালায়েন্স উদ্বোধন করেন তিনি।

এতে উপস্থিত ছিলেন নেদারল্যান্ড রাজকীয় দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত হ্যারি ভারউইজ, ইউনিসেফের চিফ অব হেলথ মায়া ভেনডেনেন্ট, ড. আবুল হোসেন, মাল্টি সেক্টর‌্যাল প্রোগ্রাম অন জেন্ডার বেজড ভায়োলেন্স, ব্যারিস্টার সারা হোসেন, নির্বাহি পরিচালক, ব্লাস্ট; কাজি সুরাইয়া সুলতানা, নির্বাহী পরিচালক, আরএইচস্টেপ; ড. আলতাফ হোসেন, নির্বাহী পরিচালক, বাপসা; ড. নূর মোহাম্মদ, নির্বাহী পরিচালক, পিএসটিসি; শার্মিন ফারহাত ওবায়েদ, প্রকল্প সমন্বয়ক, ইউবিআর এবং বিভিন্ন সেক্টরের যুব নেতৃত্বসহ জাতীয় ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংস্থার কর্মকর্তারা।

সমাপনী অধিবেশনে নেদারল্যান্ড রাজকীয় দূতাবাসের রাষ্ট্রদূত হ্যারি ভারউইজ বলেন, যুবদের জন্য মানস্মত শিক্ষা তাদের দক্ষতা বাড়ায় যা শ্রম বাজারে তাদের চাহিদা সৃষ্টিতে ভূমিকা রাখে।

সমন্বিত যৌন ও প্রজননস্বাস্থ্য শিক্ষা এবং যুববান্ধব স্বাস্থ্যসেবা বিষয়ে সহায়ক পরিবেশ তৈরি করতে কিশোর-কিশোরী ও যুবকদের জীবনে দক্ষতা অর্জন; পাশাপাশি নেতৃত্ব বিকাশে সঠিক নীতি নির্ধারণ, দিক নির্দেশনা এবং উদ্যোগ প্রয়োজন। তাদের চলার পথ মসৃণ এবং অগ্রযাত্রাকে বেগবান করার প্রয়াস নিয়ে আয়োজন করা হয় সম্মেলনের। সম্মেলনে শুরুতেই ছিল র‌্যালী এবং বিভিন্ন ধরনের স্টল প্রদর্শনী ছিল প্রাঙ্গনজুড়ে।

সম্মেলনে জানানো হয়, ইউবিআর প্রকল্প ২০১১ সাল থেকে বাংলাদেশে ১০-২৪ বছরের অবিবাহিত ও বিবাহিত কিশোর-কিশোরী ও যুবাদের মধ্যে সমন্বিত যৌন স্বাস্থ্য শিক্ষা এবং যুববান্ধব স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রম পরিচালনার মাধ্যমে সরকার ও বিভিন্ন উন্নয়নসহযোগী সংস্থার সহায়তায় উপযুক্ত পরিবেশ তৈরিতে ভূমিকা রাখছে।

এ পর্যায়ে ১২টি উপজেলায় কিশোর-যুবাদের প্রয়োজনীয় যৌন ও প্রজননস্বাস্থ্য শিক্ষা ও সেবাকেন্দ্র প্রতিষ্ঠা করতে ইউবিআর মডেলটি সারা দেশে ছড়িয়ে দেয়ার উদ্দেশ্যে এই সম্মেলনের আয়োজন। ইউবিআর দক্ষ ইয়ুথ লিডার তৈরি করেছে যারা তাদের সমবয়সি কিশোর-কিশোরী ও যুবাদের যৌন ও প্রজনন স্বাস্থ্য অধিকার রক্ষায় অ্যাডভোকেসী করছে। এই সেবাকে তাদের হাতের নাগালে নিয়ে যেতেই এই সম্মেলনের আয়োজন।

ইউবিআরের কার্যক্রমটি ১২ উপজেলার ৩৬০ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এবং কমিউনিটি পর্যায়েও বাস্তবায়িত হচ্ছে। তাদের সহায়তায় ইউবিআর ২ প্রকল্পের সময়কালীন প্রায় ৭ লাখ ২০ হাজার কিশোর ও যুবা জনগোষ্ঠীর মধ্যে যৌন ও প্রজননস্বাস্থ্য শিক্ষা ও যুববান্ধব স্বাস্থ্যসেবা প্রদান করা হয়েছে। ইউবিআরের মাঠ পর্যায়ের অভিজ্ঞতাগুলো বাংলাদেশ সরকারের প্রণীত ‘কৈশোরকালীন স্বাস্থ্যবিষয়ক জাতীয় কৌশলপত্র ২০১৭-৩০’ তৈরিতে বিবেচনা করা হয়েছে।

এ ছাড়াও জীবনমূখী শিক্ষা নারীর প্রতি সহিংসতা কামিয়ে আনতে সহায়তা করে। অনুষ্ঠানে কিশোর-কিশোরী ও যুবা তাদের যৌন ও প্রজননস্বাস্থ্য অধিকার বিষয়ের পাশাপাশি বাল্য বিয়ে, জেন্ডার ভিত্তিক সহিংসতা ও যুব নেতৃত্ব নিয়ে আলোচনা করে। বাংলা একাডেমীর দুটি অডিটরিয়ামে আলোচনা সভা ছাড়াও ১১টি সংগঠনের স্টলে বিভিন্ন প্রকল্প প্রদর্শন করা হয়।

আরও দেখুন

শিশু দিবস

বিশ্ব শিশু দিবস ও শিশু অধিকার সপ্তাহ-২০১৯ উপলক্ষে বর্ণাঢ্য শিশু শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত

কিশোর বাংলা প্রতিবেদনঃ বিশ্ব শিশু দিবস ও শিশু অধিকার সপ্তাহ-২০১৯ উপলক্ষে মহিলা ও শিশু বিষয়ক …