এই সময়ে
হোম / ফিচার / বইমেলায় কেনাবেচার হিড়িক, শিশুদের উপচে পড়া ভিড়
বইমেলায়

বইমেলায় কেনাবেচার হিড়িক, শিশুদের উপচে পড়া ভিড়

কিশোর বাংলা প্রতিবেদনঃ চলছে অমর একুশে গ্রন্থমেলা। বাঙালির প্রাণের এই মেলা ঘিরে ইতোমধ্যে দেশি-বিদেশি লেখক পাঠক ও সাহিত্যিকরা মেলাপ্রাঙ্গণে ছুটে আসতে শুরু করেছেন। অন্যদিকে শুক্র ও শনি এই দুই ছুটির দিনে দর্শনার্থীদের আরও বড় ঢল নামে বইমেলায়।

বাংলা একাডেমি ও সোহরাওয়ার্দী উদ্যান উভয় অঙ্গনেই নানা বয়সি ক্রেতা-বিক্রেতার জমজমাট উপস্থিতি চোখে পড়ে। নামিদামি প্রকাশনা সংস্থার প্যাভিলিয়নসহ ছোট বড় সব স্টলে পছন্দের বই খুঁজছেন ক্রেতারা।

আর মেলা প্রাঙ্গণ থেকে বের হওয়ার সময় প্রায় সবার হাতে হাতেই ছিল বই ও বইয়ের ব্যাগ।

শনিবার মেলা শুরু হয় সকাল ১১টায়। তার আগেই সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের ছয়টি গেটের সামনে অসংখ্য অভিভাবকগণকে সন্তানদের নিয়ে লাইনে দাঁড়িয়ে ভেতরে প্রবেশের জন্য অপেক্ষারত দেখা যায়। গেট খোলার পর পরই দলবেঁধে ভেতরে ঢোকে ছোট্টমনিরা। দুপুর পর্যন্ত মেলাপ্রাঙ্গণ ছিল শিশুদের আনাগোনায় মুখর।

বিশেষত সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের সিসিমপুর কর্নারে অনেক শিশুই খেলায় মেতে উঠে। এছাড়াও শিশু কর্নারের ৫৭টি স্টলে শিশুরা অভিবাবকদের সঙ্গে তাদের পছন্দের বই কিনে মনের আনন্দে।

বেলা গড়ানোর সঙ্গে সঙ্গে লোক সমাগম বাড়তে থাকে। বিকেলে দোয়েল চত্বর ও টিএসসির পথ বেয়ে আসা সব মানুষকেই দেহ তল্লাশি করে নিরাপত্তাকর্মীরা।

বাংলা একাডেমি আয়োজিত এ মেলা চলবে ২৮ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। এবারের মেলার মূল থিম নির্ধারণ করা হয়েছে ‘বিজয় : ১৯৫২ থেকে ১৯৭১, নবপর্যায়’।

আরও দেখুন

ষাটগম্বুজ

ঐতিহাসিক ষাটগম্বুজ মসজিদে শিশু কর্নার

কিশোর বাংলা প্রতিবেদনঃ বিশ্ব ঐতিহ্য ঐতিহাসিক ষাটগম্বুজ মসজিদ। দেশের প্রাচীনতম ঐতিহাসিক এই মসজিদের প্রতিদিন ঘুরতে …