এই সময়ে
হোম / কিশোর সংবাদ / জাতীয় শিশু দিবসে বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলার সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত
জাতীয় শিশু দিবস

জাতীয় শিশু দিবসে বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলার সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত

কিশোর বাংলা প্রতিবেদনঃ জাতীয় শিশু দিবস ও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ১০০তম জন্মদিন উদযাপন উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলা ঢাকা জেলা ও ঢাকা মহানগর আয়োজিত ঢাকা অঞ্চলের সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা-২০১৯ এবং পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠান শেষ হয়েছে। গতকাল রবিবার রাজধানীর তেজগাঁও কলেজে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বেলুন উড়িয়ে উদ্বোধন করেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ও কেন্দ্রীয় বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলার প্রধান উপদেষ্টা ইকবাল সোবহান চৌধুরী।

জাতীয় শিশু দিবসকেন্দ্রীয় বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলা আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ইকবাল সোবহান চৌধুরী। এছাড়াও বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন কিশোর বাংলার সম্পাদক ও কেন্দ্রীয় বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলার প্রধান পৃষ্ঠপোষক মীর মোশাররেফ হোসেন পাকবীর, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক, বিশিষ্ট সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব ড. ইনামুল হক, স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের সঙ্গীত শিল্পী মনোরঞ্জন ঘোষাল, একুশে পদকপ্রাপ্ত অভিনয় শিল্পী লাকি ইনাম, পরিবেশ বাঁচাও আন্দোলন (পবা)র সাধারণ সম্পাদক প্রকৌশলী মো: আবদুস সোবহান, কেন্দ্রীয় বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলা সভাপতি মিয়া মনসফ, বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলার সাধারণ সম্পাদক ইয়াছিন মোহাম্মদ, ঢাকা জেলার সভাপতি জাফর ইকবাল, সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম ও ঢাকা মহানগর সভাপতি রহমত উল্লাহ সবুজ, সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম প্রমুখ।

জাতীয় শিশু দিবসএ আয়োজন প্রসঙ্গে কেন্দ্রীয় বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলার প্রধান পৃষ্ঠপোষক মীর মোশাররেফ হোসেন পাকবীর এমএনএকে জানান, সংগঠনের উপদেষ্টা ড. নীলিমা ইব্রাহিমের প্রস্তাবনা অনুসারে দীর্ঘ ২৬ বছর যাবত বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে জাতীয় শিশু দিবস পালন করে আসছে বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলা। এ বছর সারাদেশের ৬১ জেলায় বঙ্গবন্ধুর জন্মদিন উপলক্ষে আয়োজিত জাতীয় সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় ১১ বিষয়ে ৪ গ্রুপে প্রায় ৭০ হাজার প্রতিযোগী অংশ নিচ্ছে। এর মধ্যে গতকাল রবিবার তেজগাঁও কলেজে ঢাকা অঞ্চলের প্রতিযোগিতায় অংশ নেয় দুই সহস্রাধিক প্রতিযোগী। প্রতিযোগিতার বিষয়গুলো ছিল রবীন্দ্র সঙ্গীত, নজরুল সঙ্গীত, ছড়াগান, পল্লীগীতি, বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে গান, দেশাত্মবোধক গান, সাধারণ নৃত্য, লোক নৃত্য, আবৃত্তি, অভিনয় ও চিত্রাঙ্কন। প্রতিযোগিতায় বিজয়ী ৮০ জনকে কিশোর বাংলার সৌজন্যে পুরষ্কার ও সার্টিফিকেট প্রদান করা হয়।

পুরস্কার বিতরণ করেন কেন্দ্রীয় বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলার প্রধান পৃষ্ঠপোষক মীর মোশাররেফ হোসেন পাকবীর এবং সংগঠনের উপদেষ্টা ও স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের সঙ্গীত শিল্পী মনোরঞ্জন ঘোষাল।

এমন একটি আয়োজন সফল হওয়ায় সংশ্লিষ্টদের ধন্যবাদ জানান মীর মোশাররেফ হোসেন পাকবীর। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধুর শততম জন্মদিনে “বঙ্গবন্ধু বর্ষ” উদযাপনে এই আয়োজনের অন্যতম উদ্দেশ্য আজকের শিশু কিশোররা যেন বঙ্গবন্ধুর আদর্শে নিজেদের গড়ে তোলে। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা গড়ে তুলতে তারা তাদের মেধাকে কাজে লাগায় সে বিষয়ে উদ্বুদ্ধ করতেই এই আয়োজন। এই আয়োজন সফলতার সঙ্গে শেষ হওয়ায় আমরা সকলেই আনন্দিত ও গর্বিত।

আরও দেখুন

অনলাইন

অনলাইন সুরক্ষা পাবে ১২ লাখ শিশু-কিশোর

কিশোর বাংলা প্রতিবেদনঃ বাংলাদেশে ২০২১ সালের মধ্যে ১২ লাখ শিশু-কিশোরকে অনলাইন সুরক্ষার আওতায় আনা হবে। …